Gov টিচার Job – মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বিভাগ – ২০৩০০ মুল বেতন পদের সংখ্যা ১০০০ বিনা অভিজ্ঞ

প্রথমেই মনে রাখবেন, এটি একটি সরকারি চাকরির সার্কুলার। সরকার শিক্ষা বিভাগে নতুন একটি প্রোগ্রাম চালু করেছে। এটি সেই প্রোগ্রামের আওতাধিন একটি নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি

কি প্রোগ্রাম?

এই প্রোগ্রামের সংক্ষিপ্ত নাম হচ্ছে, সেসিপ (SESIP), যার পুর্নাংগ নাম হচ্ছে, সেকেন্ডারি এডুকেশন সেক্টর ইনভেস্টমেন্ট প্রোগ্রাম। আপাতত এটি সরকারের একটি মেয়াদকালিন প্রোগ্রাম এবং মেয়াদ শেষ হয়ে গেলে এই চাকরির মেয়াদ ও সেই সময় শেষ হয়ে যাবে। তবে মেয়াদ উত্তির্নের পরে মেয়াদ বাড়ানো হবে বলে আমার মনে হয় (এটি সম্পুর্ন আমার ব্যক্তিগত অভিমত)। সার্কুলারে স্পষ্ট উল্লেখ আছে যে, এটি সম্পুর্ন অস্থায়িভাবে নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি। তাই, দয়া করে এটিকে স্থায়ি সরকারি চাকরি ভেবে ভুল করবেন না আশা করি।

পদের নাম কি?

আর যাই হোক পদের নামটা খুবই আকর্ষনিয়। রিসোর্স টিচার যাকে সংক্ষেপে বলা হয় আরটি। শিক্ষকতা করাই এই পদের কাজ, এতে কোন সন্দেহ নেই। তাই, শিক্ষকতায় আগ্রহ যদি আপনার থেকে থাকে তাহলে এই চেয়ে ভাল চাকরি আর আছে বলে আমার মনে হয়না। যদিও অস্থায়ি চাকরি, তারপরেও যেহেতু সরকারি সেহেতু এই জব আপনার ভবিষ্যতকে উজ্জল করে তুলবে, এ ব্যপারে কোন সন্দেহ নেই। এই পদের জন্য ১০০০ জন  টিচার নিয়োগ দেয়া হবে বলে সার্কুলার স্পষ্ট উল্লেখ আছে। তাই এই জবের জন্য এপ্লাই করলে প্রাপ্তির সম্ভাবনা অনেকখানি বলেই আমার মনে হয়।

শিক্ষাগত যোগ্যতা কি?

শিক্ষাগত যোগ্যতার আগে বলে রাখা দরকার বয়সের সীমাবদ্ধতার কথা। যেহেতু সরকারি চাকরি সেহেতু নিয়োগের পদ্ধতি পুরোটাই সরকারি নিতি অনুযায়ি পরিচালিত। তার মানে হচ্ছে, বয়স অবশ্যই ৩০ বছরের মধ্যে হতে হবে তবে মুক্তিযোদ্ধা এবং শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের সন্তানদের জন্য ৩২ বছর পর্যন্ত শিথিলযোগ্য।

শিক্ষার ব্যপারে যেটা উল্লেখ আছে সেটা হল, অবশ্যই ইউভার্সিটি থেকে অনার্স/ স্নাতক (পাস)/ মাস্টার্স ডিগ্রিধারি হতে হবে তাও আবার শুধুমাত্র গণিত, বিজ্ঞান এবং ইংরেজি বিষয়ে। শুধু তাই নয়, যদি স্নাতক (পাস) হয়ে থাকেন তাহলে ফিফটি পার্সেন্ট (৫০%) মার্ক থাকতে হবে গণিত এবং বিজ্ঞান বিষয়ে এবং ইংরেজির ক্ষেত্রেও ফরটি ফাইভ (৪৫%) পার্সেন্ট মার্ক থাকতে হবে।

এছাড়া অগ্রাধিকার ভিত্তিতেও আপনি জয়েন করতে পারেন যদি আপনার থাকে বিএড ডিগ্রি অথবা ডিপ ইন এড ডিগ্রি অথবা এমএড ডিগ্রি।

এপ্লাই করার নিয়ম কানুন কি?

যদিও সরকারি চাকরি এবং সরকারি চাকরিতে আবেদন সাধারনত সরাসরি বায়োডাটার হার্ড কপি পাঠিয়ে করতে হয়, কিন্তু এই সরকারি চাকরিতে এপ্লাই করার জন্য আপনাকে কষ্ট করে আপনার সিভির হার্ড কপি কোন ঠিকানায় পাঠাতে হবেনা। ঘরে বসেই অনলাইনে আবেদন জমা দেবার সিস্টেম আছে এই জবের জন্য। এজন্য এই প্রোগ্রামের নিজস্ব ওয়েবসাইটের মাধ্যতে এপ্লাই করার বিশেষ ব্যবস্থা আছে। যেখানে খুব দারুনভাবে একটি এপ্লিকেশন ফর্ম দেয়া আছে এবং যে কেউ সেই ফর্ম ফিলাপ করে আবেদন করতে পারবেন। তবে আবেদন করার আগে সকল কাগজ পত্র এবং ছবি রেডি রাখতে পারেন। তানা হলে আবেদনের মাঝে মাঝে আপনাকে এটা ওটার জন্য ছোটাছোটি করতে হতে পারে। আর একটা ব্যপার, সেটি হল, আপনি অবশ্যই আপনার যোগ্যতা পুরোপুরি থাকলেই তবে আবেদন করবেন দয়া করে। কারন যোগ্যতা ছাডাই আবেদন করলে সেই আবেদন বাতিল হয়ে যাবে। তাই এই ব্যপারে আশা করি সতর্ক থাকবেন এবং আপনার পরিচিত যারা এপ্লাই করবেন, তাদেরকে সতর্ক করে দিবেন। শুধু তাই নয় আবেদন অনলাইনে শুরু করার আগে, সার্কুলার ভাল করে পড়ে নিবেন যেন কোন কিছু বাতিল হয়ে না যায় আপনার অজান্তেই। যেমন ধরা যাক, কোটা সিস্টেম থাকতে পারে, যেটার জন্য আপনি হয়তো যোগ্য কিন্তু না জানার কারনে আপনি ব্যপারটা থেকে ছিটকে পরলেন। এছাড়া আবেদনের অনলাইন ফর্ম খুব ঠান্ডা মাথায় ধিরে ধিরে ফিলাপ করবেন তানা হলে অনেক ভুল হবার সম্ভাবনা থেকেই যাই।

আবেদন করার জন্য অনলাইন ফর্মেঃ এর মাধ্যমে যেতে পারবেন
প্রশ্ন থাকলে লিখুন
 

Author: admin

1 thought on “Gov টিচার Job – মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বিভাগ – ২০৩০০ মুল বেতন পদের সংখ্যা ১০০০ বিনা অভিজ্ঞ”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.