সাকিব আর সুনীল তুড়িয়ে পুড়িয়ে ছারখার করে দিলো কিংস রাজশাহিকে

এ যেন এক কববস্থান। না, কবরস্থান বললেও ভুল হবে। বহুদিনের পুরোনো কবরস্থান সবচেয়া সুটেবল। এক কথায় বদ্ধভুমি। যে উইকেট ঝড়ের খেলাটা দেখা গেল মধ্য দুপুর বেলাতেই, তাতে ব্যাটসম্যনদের বুকে হিরোশিমার ভয় ডুকে গেল। তারপর আবার বিকেলের কথাতো সবারই জানা। স্কোর উপচে উঠে গেল ২০০ এর উপরে। মনে হতে পারে যেন খারাপ উইকেটের কারনেই অঘটনগুলো ঘটছে। কিন্তু না। মাঠে যারা খেলা দেখতে গিয়েছিলেন তারা সবাই জানেন আসল ব্যপারটা কি। সাবান মাখা হাত যেমন কিছুই ধরতে পারেনা, পিছলে যায় সবকিছু, ঠিক তেমন অবস্থা হয়ে গিয়েছিল রাজশাহি কিংসের।

সবাই দেখেছে, একটা ম্যচে, ফিল্ডিং কতটা নড়বড়ে হতে পারে। কারন, ঢাকা ডায়নামাইটস চোখ বন্ধ করে তুলে নিয়েছিল ২০৫, তাও আবার ৫ উইকেটে।

এটা ঠিক যে, সাকিবের সামনে ছিল বিশাল এক পাহারের লক্ষ্য। কিন্তু সাকিবের আগুনের কাছে রাজশাহি কিংস বরফ হয়ে গলে যেতে থাকলো। ঝড়ের তিব্রতায় রাজশাহি হেরে গেল  নয় নয় ৯৯ টি রানে।

এত সহজে যুদ্ধ শেষ হয়ে যাবে সেটা দর্শকগন চিন্তাও করতে পারেনি। দর্শকরা এসেছিল রমরমা উত্তেজনায় পরিপুর্ন একটি ম্যাচ দেখতে। কিন্তু ড্যম হয়ে যাওয়া পপকর্নের মত জিরো টেম্পারেচারের খেলার কষাঘাতে, মিরপুর স্টেডিয়াম ঢলে পড়ল কনকনে শীতে জমে যাওয়া আশাহত শিশুর মত।

প্রশ্ন থাকলে লিখুন
 

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.